TOP লাইফস্টাইল

বেলপাতা ছাড়াও আরও পাঁচটি পাতায় তুষ্ট করা যায় মহাদেবকে।

Loading...

শৈবধর্ম ঠিক কতটা প্রাচীন, তা বলা কঠিন। লিঙ্গোপাসনা ও হরপ্পার সিল-এ পশুপতির ছবি বিচার করতে বসলে হাজার পাঁচেক বছর তো পিছিয়েই দেওয়া যায় এই উপাসনাকে। শিব পূজার বিধি এতটাই সরল ও সাধারণ যে, ‘ভোলেবাবা’ শিব অতি সামান্যেই তুষ্ট’— এমন একটা ধারণা সনাতন ভারতীয় সমাজে চলিত রয়েছে। ত্রিনয়ন শিব ও ত্রিনয়ন সদৃশ বিল্বপত্রের সংযুক্তি সর্বজনবিদিত। কিন্তু শৈব আচার থেকে জানা যায়, কেবল বেলপাতা নয়, মহাদেবকে তুষ্ট করা যায় আরও পাঁচটি পাতায়। জেনে নেওয়া যেতে পারে তাদের কথা।

• অশ্বত্থ— ‘স্কন্দ পুরাণ’ অনুসারে, ব্রহ্মা-বিষ্ণু-মহেশ্বরের আবাস অশ্বত্থবৃক্ষে। অতি প্রাচীন কাল থেকেই ভারতীয় সংস্কৃতিতে এই বৃক্ষকে অতি পবিত্র বলে মনে করা হয়। শিবলিঙ্গে অশ্বত্থ পাতা প্রদান তাই বিল্বপত্র প্রদানের মতো পবিত্র কাজ বলে মনে করা হয়। শিবলিঙ্গে অশ্বত্থ পাতা প্রদান শনিদোষ কাটাতে সাহায্য করে বলে বিশ্বাস করে হিন্দু সংস্কার।

• বট— বেশ কিছু হিন্দু শাস্ত্রে বটবৃক্ষকে অমরত্বের প্রতীক বলে মনে করা হয়। বটের প্রতীকের সঙ্গে পুনর্জন্মকে সংশ্লিষ্ট করা হয় না। শিবকে প্রায়শই বটবৃক্ষের নীচে উপবিষ্ট বলে কল্পনা করা হয়। এই কল্প শিবের ‘মৃত্যুঞ্জয়’ রূপ। সেই কারণে শিবকে বটপাতা প্রদান করলে দীর্ঘায়ু লাভ ও দুর্ভাগ্য দূর হয় বলে বিশ্বাস।

প্রতিটি তাজা আপডেট পেতে খবরের ঝুলি’র ফেসবুক পেজ লাইক করুন- Khoborer Jhuli- খবরের ঝুলি

• অশোক— এই বৃক্ষকেও পবিত্র বলে মনে করে হিন্দু সনাতন জীবনধারা। প্রায় প্রতিটি শুভ কাজে শুভশক্তিকে আকর্ষণ করতে অশোকপত্রের ব্যবহার রয়েছে। শিবলিঙ্গে অশোকপত্র প্রদান যশ ও সৌভাগ্য এনে দেয় বলে বিশ্বাস।

• আম— আম্রপল্লবকেও সৌভাগ্য আনয়নকারী বলে মনে করে সনাতন ভারত। পূর্ণ ঘটের উপরে আম্রপল্লব স্থাপন না করলে পূজা সম্পন্ন হয় না। শিবকে আম্রপল্লব প্রদান সুখ ও সমৃদ্ধি নিয়ে আসে।

• আকন্দ— এই গাছটি একান্ত ভাবেই শৈব অনুষঙ্গবাহী। আকন্দ ফলকে শিবের একান্ত প্রিয় বলে মনে করা হয়। শিবলিঙ্গে আকন্দপাতা প্রদান করলে মন শান্ত হয়। দুর্ভাগ্য দূর হয়।

সবচেয়ে জনপ্রিয় খবরগুলো:

অবশেষে ‘বাহুবলী’কে অনুসরণ করতে চলেছেন বলিউড বাদশা!

আপনি কি জানেন কেন মহিলারা পর্নে আসক্ত হয়ে পড়েন?

বন্ধ করা হোক ‘ইসলাম বিরোধী’ সৌন্দর্য প্রতিযোগিতা! আপিল আদালতে

এই ৮ টি লক্ষণ দেখা দিলে একটু যত্ন নিন শরীরের

খবরের সঙ্গেই LIVE পর্ন! মুখ পুড়ল BBC-র, দেখুন সেই ভিডিও

 

Loading...

Comments

comments