TOP খেলা

কোনও ম্যাচ না-খেলেও দিল্লির দলে ঢুকে গেলেন এমপি’র ছেলে৷

Loading...

এই ভাবেও দল ঢোকা যায়! হ্যাঁ মরশুমে কোনও ম্যাচ না-খেলেও দিল্লির দলে ঢুকে গেলেন এমপি’র ছেলে৷

বিহারের বিতর্কিত রাজনৈতিক নেতা তথা প্রাক্তন আরজেডি সাংসদ পাপু যাদবের ছেলে সরথক রঞ্জন মরশুমে কোনও ম্যাচ না-খেলেও ঢুকে গেলে দিল্লির জাতীয় টি-২০ দলে৷ ফলে দলে জায়গা হল না অনূর্ধ্ব-২৩ দলের টপ স্কোরার হিতেন দালালের৷

মধুপুরার প্রাক্তন আরজেডি সাংসদ রাজেশ রঞ্জন যাদব (পাপু যাদব) এখন নিজেই দল গড়েছেন৷ স্ত্রী রঞ্জিত রঞ্জন অবশ্য সুপালের কংগ্রেস সাংসদ৷ এঁদের ছেলে সরথককে দলে নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও চাপ ছিল নির্বাচকদের? প্রশ্ন উঠেছে, কীভাবে পারফরমারদের বাইরে রেখে সরথককে সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-২০ দলে রাখলেন দিল্লির তিন নির্বাচক অতুল ওয়াসন, হরি গিদওয়ানি এবং রবিন সিং (জুনিয়র)৷

গত বছর মুস্তাক আলি টুর্নামেন্টে তিন ম্যাচে সরথকের রান ছিল যথাক্রমে ৫,৩ ও ২৷ শুধু তাই নয়, বিতর্কিত এই ক্রিকেটার এর আগে রঞ্জি ট্রফিতে দিল্লির প্রস্তাবিত দল থেকে ব্যক্তিগত কারণে সরে দাঁড়িয়েছিলেন৷ শোনা যায় বডি বিল্ডিংয়ে মিস্টার ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতার প্রস্তুতির জন্য রঞ্জির দল থেকে সরে দাঁড়ান সরথক৷ কিন্তু মরশুমের শেষে সরথকের মা তথা কংগ্রেস সাংসদ রঞ্জিত রঞ্জন ডিডিসিএ অ্যাডমিস্ট্রেটর প্রাক্তন বিচারপতি বিক্রমজিৎ সেনকে চিঠি লেখেন জানান তাঁর ছেলে হতাশা কাটিয়ে উঠে খেলার জন্য ফিট৷ প্রোটোকল মেনেই বিচারপ্রতি সেন সেই চিঠি নির্বাচক কমিটিকে পাঠায়৷

বিতর্কিত দল নির্বাচন নিয়ে ওয়াসন বলেন, ‘সরথকের কিছু মানসিক সমস্যা ছিল৷ কিন্তু এখনও ও সুস্থ৷ অনূর্ধ্ব-২৩ দিল্লি দল থাকা আমি ওকে মনিটার্রিং করেছি৷’ কিন্তু সিকে নাইডু ট্রফিতে একটি সেঞ্চুরি ও তিনটি হাফ-সেঞ্চুরিসহ ৪৬৮ রান করেও দলে সুযোগ হয়নি হিতেনের৷

সুত্র ঃ কলকাতা ২৪*৭

আরও পড়ুন

সবথেকে আধুনিক গভীর সমুদ্রে বন্দর বানাচ্ছে বাংলাদেশ

প্রথম বার জিমে যাচ্ছেন ?জেনে নিন কিছু হেলথি টিপস

হার্ট থেকে স্নায়ু, সমস্ত রোগ সারবে ৫০০০ বছরের পুরানো চিকিৎসায়

আজ: মঙ্গলবার 9 জানুয়ারি 2018: রাশিফলে জেনে নিন কেমন যাবে আপনার দিনটি

 

Loading...

Comments

comments