TOP লাইফস্টাইল শিক্ষা ও স্বাস্থ্য

রাতে রোজ স্নান করে ঘুমান, শরীর-মনে ভালো থাকবে

Loading...

অনেকে একটি অভিযোগ প্রায়ই করে থাকেন। রাতে কিছুতেই ভালো ঘুম হয় না, কিংবা ঘুম আসতে দেরি হয়। নানা রকম চেষ্টাতেও বিশেষ লাভ হয়নি। কেউ কেউ অ্যারোম্যাটিক অয়েল ব্যবহার করেছেন, আবার কেউ সরাসরি ওষুধের সাহায্য নিয়েছেন। তবে বিশেষ সুবিধে যে হয়েছে তা জোর গলায় বলা যায় না। ঘুমের সমস্যার থেকে মুক্তি পাওয়ার কিন্তু একটি অতি সহজ সরল উপায় রয়েছে.. শাওয়ার থেরাপি বা সহজ ভাষায় বলতে গেলে স্নান থেরাপি। তবে শুধুমাত্র ভালো ঘুমের ওষুধই নয়, এই থেরাপির রয়েছে আরও অনেক সুফল।

সারাদিনের ক্লান্তি দূর করতে যেমন স্নানের জুড়ি নেই, তেমনই ত্বকের জন্যেও এই শাওয়ার থেরাপি জাস্ট পারফেক্ট। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ঈষদুষ্ণ জলে স্নান করলে ত্বকের উপর জমে থাকা ধুলো ময়লা পরিষ্কার হয়ে যায়। ত্বকের রোমকূপ খুলে যায়, ফলে আরও বেশি রিফ্রেশড লাগে দিন শেষে। আর যদি স্নানের জলে দুধ মিশিয়ে নিতে পারেন, তাহলে তো কথাই নেই। ত্বকের জেল্লাও বেড়ে যাবে কয়েকগুণ।

প্রতি রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে বেশ খানিকটা সময় নিয়ে স্নান করতে পারলে তার প্রভাব পড়ে আপনার ব্লাড প্রেশারেও। শাওয়ার থেরাপি স্ট্রেস কমানোর পাশাপাশি আপনার রক্তচাপও কমাতে সাহায্য করে।

যাঁরা সন্ধেবেলা ওয়র্কআউট করেন তাঁদের জন্যে কিন্তু ঘুমোতে যাওয়ার আগে স্নান করা ইজ আ মাস্ট। শরীরে ঘাম জমে থাকলে নানা রকম ফাঙ্গল ইনফেকশন হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। এছাড়াও ওয়র্কআউটের পর ঈষদুষ্ণ জলে স্নান বা স্টিম বাথ আপনার মাংসপেশি রিল্যাক্স করতে সাহায্য করে। তাছাড়া মাসল পেইনও কমায়।

প্রতি রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে স্নানের জলে ওডিকোলন বা এসেনশিয়াল অয়েলের কয়েক ফোঁটা ফেলে স্নান সারলে ইনসমনিয়ার থেকেও মুক্তি পাবেন।

চেষ্টা করবেন রাতের স্নানটা ঈষদুষ্ণ জলেই করতে। তবে কোনও ওয়র্কআউটের অন্তত ৩০ মিনিট পরেই স্নান করবেন।

সবচেয়ে জনপ্রিয় খবরগুলি:

কোনো টাকা লাগবে না, আজীবন ফ্রি নেট, ভয়েস কল! জিও-র এই মেসেজটি পেয়েছেন নাকি!

গাড়ির মধ্যে যাত্রীর সামনেই যৌনকর্মীর সঙ্গে উদ্দাম যৌন সঙ্গম উবের চালকের, ভাইরাল ভিডিও

চুল্লিতে ঢোকানোর আগেই নড়ে উঠল মৃতদেহ! আত্মীয়রা ছুটলেন হাসপাতালে

পরিবারের সবার সামনেই এই 16 বছরের কিশোরীকে ধর্ষণের নিদান

মেয়ের সঙ্গে কিছুটা সময় কাটাতে গিয়ে এ কী হাল হল অক্ষয় কুমারের! ভিডিওতে দেখুন

‘মণিবন্ধন’, ‘বার্হিমুখম’, ‘দ্বোয়াজা’! ‘বাহুবলী’র এই তিন তীর ছোড়ার কৌশল জানত প্রাচীন ভারতও!

Loading...

Comments

comments