TOP সোশ্যাল

১০৮ পার করেও দিব্যি গ্রামের রাস্তায় হেঁটে বেড়ান সিদ্ধানন্দ

Loading...

কাকদ্বীপ থেকে নামখানা যাওয়ার পথে ১১৭ নম্বর জাতীয় সড়কে আশ্রমমোড় বাস স্টপেজ৷ সেখানে গেলেই দেখা মিলবে সিদ্ধানন্দ ব্রহ্মচারীর৷ এ বছরের জানুয়ারিতে ১০৯ বছরে পা দিয়েছেন এই মহারাজ৷ গেরুয়া বসনের শতায়ু এই মহারাজ এখনও আশপাশের গ্রামে দিব্যি ঘুরে বেড়ান হেঁটে৷ দৃষ্টিশক্তি কমেছে , কানেও ভালো শুনতে পান না তিনি৷ লাঠিই এখন একমাত্র ভরসা৷ স্বাধীনতার আগে সিদ্ধানন্দ মহারাজের আশ্রম গড়ে ওঠার পর থেকেই এলাকার মানুষের কাছে ওই জায়গা আশ্রমমোড় নামেই পরিচিত৷

ফলতার অনন্তরামপুরের আদি বাসিন্দা সিদ্ধানন্দ৷ জন্ম ১৯০৮ সালে৷ প্রাথমিক শিক্ষা শেষ করার পর বাড়ি ছাড়েন সিদ্ধানন্দ৷ কুড়ি বছর বয়সে তিনি ফলতার বাড়ি ছেড়ে সুন্দরবনে চলে আসেন৷ জল জঙ্গলে ভরা সুন্দরবনে তখন ভালো করে মানুষের বসতি গড়ে ওঠেনি৷ কাকদ্বীপের বুধাখালির কাছে একটি এলাকাতে জঙ্গল সাফাই করে নিজে আশ্রম গড়ে তোলেন৷ স্বাধীনতার আগে সেই আশ্রমে এলাকার মানুষকে স্বাধীনতা সংগ্রামে উদ্বুদ্ধও করতেন যুবা সিদ্ধানন্দ৷ স্বাধীনতার পরও ছেদ পড়েনি সমাজসেবায়৷ এলাকায় স্কুল থাকলেও মেয়েরা স্কুলে যেতে আগ্রহী ছিল না৷ দুই বিঘা জমি তিনি মেয়েদের স্কুল তৈরির জন্য দান করেন৷

এক সময় তাঁর জমিতেই গড়ে ওঠে সিদ্ধানন্দ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়৷ সেই স্কুলে এখন এলাকার মেয়েরা পড়ে৷ ওই স্কুলের পাশাপাশি তাঁর দান করা জমিতে গড়ে উঠেছে বিশালাক্ষ্মী প্রাথমিক বিদ্যালয়ও৷ এর মধ্যে আশ্রমকে কেন্দ্র করে নানান সামাজিক কাজকর্মে নিয়োজিত করেছেন সিদ্ধানন্দ৷ এই ব্রহ্মচারী বরাবরই নিরামিষাশী৷ ভাগ্নে পশুপতি মণ্ডলকে এক সময় তাঁর কাছে এনে রেখেছিলেন৷ কিন্ত্ত মারা গিয়েছেন তিনিও৷ এখন ভাগ্নের ছেলে স্বপন ও তাঁর স্ত্রী ঝর্নাই তাঁর দেখভাল করেন৷ কালের নিয়মে আশ্রম ভেঙে পড়েছে৷ আশ্রম লাগোয়া বাড়িতে একলাই থাকতে ভালোবাসেন তিনি৷ এলাকার প্রবীণ বাসিন্দা জনার্দন মিশ্র বলেন , ‘বাবার মুখেও ওঁর কত কথা শুনেছি৷ উনি না থাকলে এই আশ্রমমোড় নামটাই আজ হত না৷

একশো বছর পার করেও উনি সাধ্যমতো হাঁটাহাঁটি করেন৷ ’ কেমন আছেন ? এই প্রশ্ন শুনে সিদ্ধানন্দ একগাল হেসে বলেন , ‘এলাকার মানুষরাই আমাকে ভালো রেখেছেন৷ আমি উপলক্ষ মাত্র৷ মনের জোর আর ইচ্ছেটা আসল৷ এই বয়সেও এই দু’টো আমার মধ্যে কাজ করে৷ ’

সুত্র ঃ এইসময়

আরও পড়ুন

নাম বদলের শর্তে অবশেষে মুক্তির ছাড়পত্র পেল ‘পদ্মাবতী’

পিসির বাড়িতে উদ্ধার হল নবম শ্রেণির ছাত্রীর নিথর দেহ

অভিনব উদ্যোগ, বাবার শ্রাদ্ধে না খাইয়ে অর্থসাহায্য কিডনি রোগীকে

জেনে নিন নতুন বছরে কেমন হবে আপনার যৌনজীবন?

Loading...

Comments

comments