TOP লাইফস্টাইল সোশ্যাল

জন্ম তারিখ অনুযায়ী জেনে নিন আপনার ব্যক্তিত্ব

Loading...

আপনার জন্মদিনের তারিখটা কত? আজকালকার দিনে আমরা সবাই নিজের নিজের জন্মদিন জানি। একে অন্যকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোটাও এখন অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে আমাদের। কিন্তু আপনার এই যে জন্মদিন, সেটা কি শুধুই একটি সংখ্যা? নাকি এরও রয়েছে কোনও তাৎপর্য? রাশিতত্ত্বের নিউমারলজি বা সংখ্যাতত্ব অনুযায়ী, আপনার ব্যক্তিত্বের ওপর এই জন্মদিনের রয়েছে অনেক বড় প্রভাব। জন্মদিন ব্যবহার করে আপনার ব্যক্তিত্ব নির্ণয় করার রয়েছে একটি চমৎকার উপায়। এ প্রক্রিয়ায় আপনি নিজের জন্মদিন থেকে বের করে নিতে পারবেন একটি বিশেষ সংখ্যা যা বলে দেবে আপনার ব্যক্তিত্বের বিচিত্র সব তথ্য।

 

কি করে বের করবেন আপনার এই সংখ্যাটি

পদ্ধতিটি বেশ সহজ আসলে। জন্মদিন ১ তারিখ হলে আপনার এই সংখ্যাও ১। ধরে নেওয়া যাক আপনার জন্মদিন হলো ২৬ তারিখে। তাহলে (২+৬)= ৮ হবে আপনার সংখ্যা। জন্মদিন যদি হয় ১০ তারিখে, তবে সংখ্যা হবে (১+০)=১। একই কথা ২০ এবং ৩০ তারিখের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। এখন যদি জন্মদিন হয় ২৯ তারিখে তবে সংখ্যা কত হবে? (২+৯)= ১১ হবে। কিন্তু এই ১১ কে আবারও যোগ করতে হবে যতক্ষণ না একটা সংখ্যা আসে অর্থাৎ (১+১)=২ হবে তার সংখ্যা। এখানে আরেকটা কথা আছে। যার জন্মদিন ১১ বা ২২, তার সংখ্যাও ১১ বা ২২, একে আর যোগ করতে হবে না।

সংখ্যা তো বের হলো, এবার দেখে নিন এই সংখ্যা অনুযায়ী আপনার ব্যক্তিত্ব কেমনঃ

আপনার সংখ্যা যখন ১
এক হলো নেতা, পথ প্রদর্শক। শুধু তাই নয়, একা একাই পথ চলার ক্ষেত্রেও তিনি পারদর্শী। তিনি স্বাধীনভাবে জীবন কাটিয়ে দিতে পারেন। জীবনের সব ক্ষেত্রেই প্রথম হবার উচ্চাকাঙ্খা দেখা যায় তার মাঝে। এ কারণে আত্মবিশ্বাস এবং দৃঢ়তা দেখা যায় তার মাঝে। কিন্তু এর পাশাপাশি কখনো কখনো অহংকার এবং আত্মকেন্দ্রিক হতে দেখা যায় তাদেরকে। প্রেমের ক্ষেত্রেও তারা কর্তৃত্বপরায়ন হয়ে থাকেন। তবে যথেষ্ট উত্তেজনা না থাকলে ভালোবাসাও তাদের কাছে একঘেয়ে মনে হয়।

আপনার সংখ্যা যখন ২
এরা হয়ে থাকেন মধ্যস্থতাকারী এবং শান্তিপ্রিয়। শান্তি এবং স্থিতি ভালোবাসেন তারা। তাদের চরিত্রে থাকে উষ্ণতা। তারা নিজেদের জীবনেও শান্তি পছন্দ করেন এবং হয়ে থাকেন কিছুটা স্পর্শকাতর। তবে তারা অন্যের ওপরে নির্ভরশীল হয়ে থাকেন। নিজের উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য কখনো কখনো কূটচালের আশ্রয় নিয়ে থাকেন। প্রেমের ক্ষেত্রেও তারা পছন্দ করেন স্থিতিশীলতা। সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য যা দরকার সবই করতে রাজি থাকেন তারা। এক্ষেত্রে জন্মতারিখ যেটাই হোক না কেন, অনেকটা কর্কট রাশির সাথে মিল রয়েছে তাদের।

আপনার সংখ্যা যখন ৩
এরা হয়ে থাকেন বেশ সামাজিক এবং আমুদে মানুষ। দয়ালু এবং ইতিবাচক মনোভাবের এসব মানুষ জীবনকে উপভোগের চেষ্টা করেন সব সময়ে। তাদের রসবোধও অনেক ভালো। তবে কখনো তারা হয়ে উঠতে পারেন এলোমেলো স্বভাবের, হতে পারেন অতিরিক্ত বিলাসী। প্রেমের ক্ষেত্রে কিছুটা দুরত্ব বজায় রাখেন তারা, দরকার হয় একটু স্বাধীনতা। নয়তো তারা নিজেদের বন্দী মনে করেন এবং সেই সম্পর্ক ভেঙে ফেলার চেষ্টা করেন।

আপনার সংখ্যা যখন ৪
এরা হয়ে থাকেন পরিশ্রমী এবং কাজের মানুষ। অন্যকে সাহজ্য করতেও তাদের জুড়ি নেই। বিশ্বস্ত মানুষ হয়ে থাকেন ৪ সংখ্যার মানুষ। যুক্তি দিয়ে কাজ করে সমস্যা সমাধান করেন তারা। আর নিজেই নিজেকে শাসনে রাখতে পারেন তারা। তবে কখনো কখনো খুব বেশি গোঁয়ার হয়ে থাকেন। প্রেমের ক্ষেত্রে তারা বিশ্বস্ত হয়ে থাকলেও কখনো খুব বেশি আবেগি এবং হতাশ হয়ে পড়েন।

আপনার সংখ্যা যখন ৫
সংখ্যা যাদের ৫, তাদের সবচাইতে বড় বৈশিষ্ট্য হলো তারা স্বাধীনতা পছন্দ করেন। তারা হয়ে থাকেন বুদ্ধিমান, মাথায় যাদের গিজগিজ করে আইডিয়া। যে কোনও পরিস্থিতিতে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে চেষ্টা করেন তারা। হয়ে থাকেন আমুদে এবং নমনীয় প্রকৃতির। কিন্তু মাঝে মাঝে দায়িত্ব পালনে এদের অনীহা দেখা যায়। কোনও কাজে লেগে থাকতে হলে তা করার ক্ষেত্রে অনুৎসাহী হয়ে পড়েন। প্রেমের ক্ষেত্রে অপর পক্ষ থেকে যথেষ্ট সাড়া না পেলেও তারা উৎসাহ হারিয়ে ফেলেন।

আপনার সংখ্যা যখন ৬
অনেকটা ২ এর মতো, সংখ্যা ৬ এর মানুষ হয়ে থাকেন শান্তিপ্রিয়। পরিবারের প্রতি অনুগত থাকেন তারা। যাকে ভালোবাসেন তার জন্য নিজেকে উজাড় করে দিতে পারেন। তবে তার প্রতি একটা অধিকার স্থাপন করে ফেলেন তিনি, এবং কখনো কখনো হয়ে ওঠেন ঈর্ষান্বিত।

আপনার সংখ্যা যদি হয় ৭
খুব গভীরভাবে চিন্তাভাবনা করে চলেন আপনি। জাগতিক বিষয়ে তেমন আকর্ষণ নেই আপনার। সাধারণত সংখ্যা ৭ এর মানুষেরা হয়ে থাকেন চুপচাপ। অন্যদের চাইতে ভিন্নধারার এসব মানুষেরা কখনো কখনো হয়ে থাকেন বেশি উদাস। অন্যেরা তার হৃদয় ছুঁতে পারেন না শত চেষ্টার পরেও । যদিও প্রেমের ক্ষেত্রে তাদেরকে হতে দেখা যায় খুব মনযোগী এবং তারা রোমান্সের এমন পর্যায়ে পৌঁছে যান যা অন্যদের পক্ষে চিন্তা করাও সম্ভব নয়।

আপনার সংখ্যা যদি হয় ৮
৮ নম্বর সংখ্যাধারী মানুষটি হয়ে থাকেন সবরকম কাজে পারদর্শী। তার ব্যক্তিত্ব শক্তিশালী এবং উচ্চাকাঙ্ক্ষী। সাফল্য অর্জন করতে ভালোবাসেন তিনি এবং এ কারণে তিনি হয়ে থাকেন কর্তৃত্বপরায়ন। তার কাজকর্মও হয় অনেক গোছানো। তবে মাঝে মাঝে তিনি জোর করে সাফল্য অর্জনের চেষ্টা করেন যা হয়ে ওঠে দৃষ্টিকটু। প্রেমের ক্ষেত্রে তারা দায়িত্বশীল হলেও, ভালোবাসার সম্পর্ককে তারা প্রায়শই বিজনেস ডিল হিসেবে দেখেন। ফলে সম্পর্কের মাঝে রয়ে যায় একটা কৃত্রিমতার গন্ধ।

আপনার সংখ্যা যদি হয় ৯
আপনার সংখ্যা যদি হয়ে থাকে ৯, তাহলে আপনি শিক্ষকতা পেশার জন্যে আদর্শ! কারণ আপনার ধৈর্য রয়েছে অনেক, আপনি সহমর্মিতা দেখাতে পটু আর অন্যকে সাহায্য করতেও আপনি অসাধারণ। তবে কখনো কখনো আপনি হয়ে পড়েন বেশি আবেগী। টাকাপয়সার হিসেব রাখতেও আপনার থাকতে পারে অনীহা। প্রেমের ক্ষেত্রে সাধারণত তারা হয়ে থাকেন শান্তশিষ্ট এবং মিষ্টি স্বভাবের। কিন্তু কখনো কখনো অতিরিক্ত আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন এবং সঙ্গীর ওপরে জোর খাটিয়ে থাকেন।

আপনার সংখ্যা যদি হয় ১১
অন্যের উপকারে নিজেকে বিলিয়ে দিতে জুড়ি নেই আপনার। শুধু তাই নয়, আপনার মাঝে রয়েছে একটি প্রচ্ছন্ন সৃজনশীলতা। অন্যদের সাথে সহজেই মানিয়ে নিতে পারেন আপনি। তবে মাঝে মাঝে আপনাকে বেশি স্পর্শকাতর হতে দেখা যায়। প্রেমিক/প্রেমিকা হিসেবে এরা হয়ে থাকেন চমৎকার, কারণ সঙ্গীর চরিত্রের ভালো দিকটি তারা সহজেই খুঁজে নিতে পারেন। তারা কখনোই নিজের ভালোবাসার মানুষটিকে তার ইচ্ছের বিরুদ্ধে কিছু করতে বলবেন না। সঙ্গীর বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য মেনে নিতেও তারা উদার।

আপনার সংখ্যা যদি হয় ২২
যাদের জন্ম সংখ্যা ২২, তারা হয়ে থাকেন সৃষ্টিশীল। তারা অনেক কিছু করার স্বপ্ন দেখেন বটে, কিন্তু তাই বলে জাগতিক ব্যাপার ভুলে যান না তারা। তারা কিছুটা আদর্শবাদী মনোভাবের হয়ে থাকেন। তবে কখনো কখনো বেশি আবেগপ্রবণ এবং ধ্বংসাত্মক হয়ে উঠতে দেখা যায় তাদেরকে। তারা যা শুরু করেন, তার শেষ দেখে ছাড়েন এবং প্রেমের ক্ষেত্রেও সেটাই হয়।

সবচেয়ে জনপ্রিয় খবরগুলো:

Loading...

Comments

comments