TOP নিউজ

চুপি চুপি ষষ্ঠবার বিয়ে করতে গিয়ে এ কি হল এই ব্যক্তির!

Loading...

চুপিচুপি পাঁচটি বিয়ে সেরে ফেলেছিলেন মুম্বইয়ের এক ব্যক্তি। কাক-পক্ষীতেও টের পায়নি। আত্মীয় পরিজনরা একেবারেই অন্ধকারে ছিলেন। দিব্যি পাঁচ স্ত্রীকে নিয়ে পাঁচটি সংসার পেতেছিলেন তিনি। কিন্তু ষষ্ঠবার বিয়ের পিঁড়িতে বসতে গিয়েই ঘটল বিপত্তি। ৩২ বয়সি ওই ব্যক্তির হাতে পড়ল হাতকড়া।

মুমব্রা থেকে আটক করা হয় তাঁকে। রবিবার থানে পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, ওই ব্যক্তি এবং তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪২০ (প্রতারণা) ও ৩৪ (ইচ্ছাকৃত ক্ষতি) নম্বর ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি বলে খবর। পুলিশ জানায়, মুমব্রার এক পরিবার বাড়ির মেয়ের বিয়ের জন্য পাত্র খুঁজছিল। এই খবর পেয়ে সেই পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন অভিযুক্ত। জানান, একটি জনপ্রিয় কোম্পানিতে তিনি চাকরি করেন। তাঁর একটি নিজস্ব ট্রাভেল এজেন্সিও রয়েছে। পাত্রকে পছন্দও হয়ে যায় পরিবারের। গত বছর ডিসেম্বরে বাগদান পর্ব সেরে ফেলেন তাঁরা। কিন্তু আর্থিক কারণে বিয়ের তারিখ পিছিয়ে দিয়েছিলেন কনের বাড়ির লোকজনেরা। আর তাতেই প্রতারকের হাত থেকে রক্ষা পেয়ে যান মহিলা।

এক ব্যক্তি ফোনে কনের পরিবারকে অভিযুক্তের আসল পরিচয় ফাঁস করেন। জানান, তাঁর আরও পাঁচ স্ত্রী রয়েছে। এই খবর সত্যি কিনা জানতে হবু জামাইকে সরাসরি প্রশ্ন করা হয়। কিন্তু প্রতারক তা অস্বীকার করেন। তবে প্রতারকের মুখোশে বেশিদিন নিজেকে গোপন রাখতে পারেননি। গত ২২ জুলাই চারজন মহিলা নিজেদের ওই ব্যক্তির স্ত্রী বলে দাবি করেন। গোটা ঘটনায় হতবাক মুমব্রার পরিবার। গত শুক্রবার ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তাঁরা। তার ভিত্তিতেই সেদিনই তাঁকে আটক করা হয়। কীভাবে আইনের চোখে ধুলো দিয়ে দিনের পর দিন পাঁচ স্ত্রী নিয়ে সংসার করছিলেন তিনি, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

সবথেকে জনপ্রিয় খবরগুলো:

Loading...

Comments

comments