TOP নিউজ

মর্মান্তিক: গণধর্ষণের পর মহিলার গোপনাঙ্গে মদের বোতল ঢুকিয়ে দিল দুষ্কৃতীরা

Loading...

মর্মান্তিক গণধর্ষণের শিকার হলেন এক গৃহবধূ। উঠল পুলিশি গাফিলতির অভিযোগ।

এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ করে গোপনাঙ্গে বোতল ঢুকিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তিন দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের সাঁইথিয়া পুরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাবাজি পাড়ায়।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় গৃহবধূকে সাঁইথিয়া গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, ওই গৃহবধূর স্বামী ভিন রাজ্যে কাজ করেন। দুই ছেলেমেয়েকে নিয়ে বাড়িতে থাকতেন গৃহবধূ।

রবিবার গভীর রাতে বাড়ির দরজা ভেঙে গৃহবধূকে বাড়ির বাইরে বের করে আনে তিন দুষ্কৃতী। তারা প্রত্যেকে মদ্যপ অবস্থায় ছিল। তিনজনে মিলে গৃহবধূকে ধর্ষণের পরে তাঁর হাত পা বেঁধে গোপনাঙ্গে মদের বোতল  ঢুকিয়ে দেয় বলে অভিযোগ।

মহিলা চিৎকার শুরু করলে দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়। এরপর স্থানীয় বাসিন্দা এবং পুলিশ গিয়ে মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি করে।

পেশায় বাড়ির পরিচারিকা গৃহবধূ জানান, দুষ্কৃতীরা মুখে কাপড় বেঁধে বাড়ির বাইরে নিয়ে এসে তাঁকে ধর্ষণ করে।

পুলিশ সূত্রের খবর, দুষ্কৃতীদের মধ্যে একজন মহিলার পূর্বপরিচিত। গত সপ্তাহেই তাঁকে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছিল সে। তারপর পুলিশে অভিযোগও জানিয়েছিলেন ওই মহিলা।

কিন্তু সেই অভিযোগের ভিত্তিতে স্থানীয় থানা দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে ঝামেলার মিটমাট করে দেয় বলে খবর। পুলিশ কোনও ব্যবস্থা না নেওয়াতেই এই নৃশংস ঘটনা ঘটল বলে দাবি স্থানীয় বাসিন্দাদের।

বীরভূমের পুলিশ সুপার সুধীর কুমার নীলকন্ঠম জানিয়েছেন, তিন দুষ্কৃতীকেই আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন:

চরম নিষ্টুরতা: স্কুলের টয়লেটের মধ্যে ৫ বছরের এই ছাত্রীকে ছিঁড়ে খেল পিওন

ফের প্রেমে পড়েছেন টলিউড অভিনেত্রী শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়! এবার কার?

Loading...

Comments

comments