TOP লাইফস্টাইল

যৌনজীবনে ধারাবাহিকতার অভাব কোন শারীরিক সমস্যা ডেকে আনে? জানেন কি

Loading...

যৌনজীবন সুখের হলে যেমন মন ভাল থাকে, তেমন শরীরও। সঙ্গমে অনেকখানি ক্যালোরি ঝরে যায়, মেজাজ ভাল থাকে, ত্বক ও চুলেও থাকে আলাদা ঔজ্জ্বল্য। এসব তো সকলেরই জানা। তাই একটা নির্দিষ্ট বয়সের পর নিয়মিত সঙ্গমের পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরাও। কিন্তু জানেন কি, যৌনজীবনে ধারাবাহিকতা না থাকলে কী মারাত্মক রোগের শিকার হতে পারেন আপনি। পড়ুন এই প্রতিবেদন।

ভাইরাল সংক্রমণ ও সর্দি-কাশি:
সঙ্গম শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে। যার ফলে বিভিন্ন ধরনের অ্যালার্জির বিরুদ্ধে আপনার শরীর বেশি শক্তিশালীভাবে লড়াই করতে পারে। সর্দি-কাশি, ফ্লুয়ের মতো সাধারণ রোগকে দূরে রাখে।

ঋতুস্রাবে অতিরিক্ত যন্ত্রণা:
যৌন মিলন দেহে হরমোনের সামঞ্জস্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। টেস্টোস্টেরন ও ইস্ট্রোজেন লেভেলে সমতা থাকলে মহিলাদের শরীর সুস্থ থাকে। কিন্তু দীর্ঘদিন সঙ্গমে লিপ্ত না হলে ইস্ট্রোজেনের মাত্রা বাড়ে। যার ফলে ঋতুস্রাব হয়ে ওঠে যন্ত্রণাদায়ক। তাই মিলনে ধারাবাহিকতা না থাকলে মহিলাদের শরীরে সমস্যা তৈরি হতে পারে।

উচ্চ রক্তচাপ:
হতাশা ও দুঃশ্চিন্তা থেকে মুক্ত রাখে যৌন মিলন। তাই সঙ্গমে অনিয়মের ফলে হতে পারে ঠিক উলটোটা। বাড়তে পারে শরীরের রক্তচাপ। আর উচ্চ রক্তচাপ যে একাধিক রোগের রাস্তা চওড়া করে দেয়, তা তো সকলেরই জানা।

প্রস্ট্রেট ক্যানসার:
সমীক্ষা বলছে, যে সব পুরুষের যৌন জীবন স্বাভাবিক তাঁদের মধ্যে মূত্রথলিতে ক্যানসারের সম্ভাবনা অনেক কম থাকে।

উত্তেজনা:
ব্যায়ামের মতোই সঙ্গমও এনডরফিন ও অক্সিটোসিন হরমোন ক্ষরণে সাহায্য করে। যা অতিরিক্ত উত্তেজনাকে নিয়ন্ত্রণে বড় ভূমিকা পালন করে। আর তাই সঙ্গমে ধারাবাহিকতা না থাকলে উত্তেজনায় বাদ সাধার ক্ষমতাও কমে যায়।

ঘুমের অভাব:
গবেষণা বলছে, মিলনে শরীর থেকে প্রোল্যাকটিন হরমোন ক্ষরণ হয়। যা ভাল ঘুমের বিশেষ সহায়ক। কিন্তু রতিসুখে লিপ্ত না হলে মাঝেমধ্যেই রাত জাগার সমস্যায় ভুগতে পারেন।

সূত্র ঃ সংবাদ প্রতিদিন

আরও পড়ুন

রাত বাড়লেই সেক্স প্রোডাক্টের বিক্রি বাড়ে ভারতে! বলছে সমীক্ষা

সমুদ্র সৈকতে বসে উত্তাপ ছড়াচ্ছেন সোফিয়া হায়াত

সাত পাকে বাঁধা পড়ার পর দুবাইতে মধুচন্দ্রিমা কাটাচ্ছেন নববধূ পাওলি। দেখুন সেইসব ছবি

”ঋতুমতী হওয়ার পর বাড়িতে পার্টি হয়েছিল” প্রথম ঋতুস্রাবের অভিজ্ঞতা জানালেন অভিনেত্রী রাধিকা আপটে

Loading...

Comments

comments