TOP ফটো গ্যালারি বিনোদন

কোন কোন পর্নস্টারদের নিয়ে এ বছর নেটিজেনদের উত্তেজনা তুঙ্গে? জেনে নিন

Loading...

পর্নোগ্রাফির উপর আসক্তি নেই, এমন প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ বা মহিলা খুঁজে পাওয়া বেশ কঠিন। হাজার একটা পর্ন ওয়েবসাইট রয়েছে। যেখানে ক্লিক করলেই ভেসে ওঠে হরেক বিভাগ। নিজের পছন্দের বিভাগ বেছে নিয়ে নীল ছবির মোহে ডুব দেন দর্শকরা। পর্ন আসক্ত হলেও অনেকেই হয়তো জানেন না পর্নস্টারদের তালিকায় কে কে হট ফেভরিট, কোন তারকার পর্ন ছবি ওয়েবসাইটে হট কেকের মতো বিকোচ্ছে। এই প্রতিবেদনে রইল পাঁচজন এমন পর্নস্টারের কথা, যাঁরা চলতি বছর চাহিদার শীর্ষে রয়েছেন।

টোরি ব্ল্যাক: ২৭ বছরের এই আমেরিকান পর্নস্টার নীল ছবির জগতে সবথেকে সুন্দরী হিসেবে পরিচিত। ২০০৭ সালে পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেছিলেন তিনি। খুব অল্প সময়ের মধ্যে হয়ে ওঠেন দারুণ জনপ্রিয়। নিজের অভিনয় দক্ষতা দিয়ে ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি পুরস্কারও জিতে নিয়েছেন। শুধু পর্ন ওয়েবসাইটেই নয়, সোশ্যাল মিডিয়াতেও তাঁর অসংখ্য ফ্যান ফলোয়ার রয়েছে। মা হওয়ার পর বছর দু’য়েক বিশেষ কাজ করেননি। কিন্তু ২০১৬ সালে কামব্যাক করে ফের দর্শকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন টোরি। এখনও পর্যন্ত মোট ৩৮৩টি পর্ন ছবিতে অভিনয় করেছেন এই মার্কিন সুন্দরী।

মিয়া খালিফা: বর্তমান বিশ্ব তাঁকে এক ডাকে চেনে। চশমা চোখে এই ‘হটকে’ পর্নস্টার এখন নানা কারণে সংবাদের শিরোনামেই থাকেন। লেবানিজ-আমেরিকান অভিনেত্রীর নীল ছবির কেরিয়ার মাত্র তিন বছরের। তা সত্ত্বেও সোশ্যাল মিডিয়া তাঁকে নিয়ে বেশ সরগরম থাকে। পর্ন ওয়েবসাইট পর্নহাব জানাচ্ছে, ২০১৪ সালে তাঁর ছবিগুলিই সাইটে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হয়েছিল। মুসলিম সম্প্রদায়ের এই তারকা হিজাব পরে পর্ন ছবিতে অভিনয় করার জন্য একাধিকবার সমালোচনা মুখেও পড়েছেন।

এলেক্সিস টেক্সাস: ৩০ বছরের এই মার্কিন পর্নতারকা কেরিয়ার শুরু করেছিলেন ২০০৬ সালে। প্রতিটি ছবিতেই তাঁর অভিনয়ের সিগনেচার স্টাইলের জন্য তিনি বেশি জনপ্রিয়। ৫৬৬ টি ছবিতে অভিনয় করে ফেলেছেন ইতিমধ্যেই। গত বছর ‘বেস্ট অল-গার্ল গ্রুপ সেক্স সিন’ এবং ‘মোস্ট এপিক অ্যাস’-এর জন্য দুটি পুরস্কার পেয়েছিলেন এলেক্সিস।

হোলি মাইকেলস: সুন্দরী, লাস্যময়ী এই অভিনেত্রী গত কয়েক বছর ধরে বেশ চর্চায় রয়েছেন। ২০১০-এ নীল ছবির জগতে পা রাখেন তিনি। তখন তাঁর বয়স ১৮ বছর। তাঁর সদ্য প্রস্ফুটিত যৌবনে আকর্ষিত হয়েছিলেন লক্ষ লক্ষ দর্শক। তারপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি। কেরিয়ারে একের পর এক সাফল্য পেয়েছেন হোলি।

কেয়ডেন ক্রস: ৩০ বছরের এই পর্নস্টার খুব বেশি ছবিতে অভিনয় করেননি। তবে নিজের সেক্সি লুকের জন্য ইনিও দারুণ জনপ্রিয়। ‘গ্লিডিং অল ওভার’ সিরিজের পঞ্চম সিজনের ‘ব্রেকিং বেড’ দৃশ্যে অভিনয় করেছিলেন তিনি। যে দৃশ্য সেই সময় ওয়েবসাইট থেকে মুছে ফেলা হয়েছিল। যদিও পরে তা ডিভিডিতে প্রকাশিত হয়। পর্ন ছবির অভিনেত্রীর পাশাপাশি তিনি একজন লেখিকাও। নিজের কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৫ সালে চারটি পুরস্কার জিতেছিলেন তিনি।

সবথেকে জনপ্রিয় খবরগুলো:

Loading...

Comments

comments