TOP আন্তর্জাতিক

১৩ সন্তানকে দীর্ঘদিন অন্ধকারাচ্ছন্ন অপরিচ্ছন্ন জায়গায় শিকল দিয়ে বেঁধে রাখল বাবা মা!

Loading...

দীর্ঘদিন সন্তানদের বদ্ধঘরে শিকল দিয়ে খাটের সঙ্গে বেঁধে রাখার অভিযোগ উঠল বাবা মায়ের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ক্যালিফোর্ণিয়ার।১৩ সন্তানকে আটকে রাখার অভিযোগে ইতিমধ্যেই বাবা মাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরে আটক ছেলেমেয়ের মধ্যে এক কিশোরী কোনওরকমে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পুলিশে খবর দেয়। তারপরেই ৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে মুক্তি পান অভিযুক্ত অভিভাবক অভিভাবিকা। তাঁদের নাম ডেভিড অ্যালেন তরপিন(৫৭), ও লুইজি অ্যানা তরপিন(৪৯)

অভিযোগ, দিনের পর দিন ১৩টি ছেলেমেয়েকে বদ্ধ ঘরে খাটের সঙ্গে শিকল দিয়ে আটকে রেখেছিলেন তরপিন দম্পতি। তাদের নির্দিষ্ট সময়ে খাওয়া বা স্নানের কোনও ব্যবস্থাই ছিল না। এমনকী, খিদে পেয়েচে না বললে তাদের খাবারও দেওয়া হত না। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসার পর পুলিশ হানা দেয় ওই বাড়িতে। অন্ধকারাচ্ছন্ন অপরিচ্ছন্ন জায়গা থেকে উদ্ধার হয় ১৩টি অপুষ্টিতে ভোগা অসুস্থ ছেলেমেয়ে। উদ্ধারকারী দলের নজরে আসে আটক ছেলেমেয়েদের মধ্যে সাতজনই প্রাপ্তবয়স্ক। তালিকায় ২ বছর বয়সী শিশু যেমন রয়েছে। তেমনই ২৯ বছরের যুবকও রয়েছে। নিজের সন্তানদের আটকে রাখার জন্য কোনও যুক্তিসঙ্গত কারণ দেখাতে পারেননি ওই দম্পতি।

জানা গেছে, ক্যালিফোর্ণিয়া স্কুল ডিরেক্টরিতে স্যান্ড ক্যাসল ডে স্কুলের প্রধান হিসেবে নাম রয়েছে ডেভিড তরপিনের। কিন্তু স্কুলের ঠিকানার জায়গায় তরপিন দম্পতির বাড়ির ঠিকানা রয়েছে। মাত্র ৬জন পড়ুয়া নিয়ে ২০১১ সালে এই বেসরকারি স্কুলটি শুরু হয়েছিল। ওই ৬ জন যথাক্রমে পঞ্চম, ষষ্ঠ, অষ্টম, নবম, দশম ও দ্বাদশশ্রেণীর পড়ুয়া।শিক্ষাদপ্তরের নথি অনুযায়ী ৬ পড়ুয়ার বয়স মোটামুটি ১০ থেকে ১৮-র মধ্যেই রয়েছে। ওই বছরই ব্যাঙ্ক থেকে ৫লক্ষ মার্কিন ডলার ঋণও নেন ডেভিড অ্যালেন তরপিন।

তরপিন দম্পতির ফেসবুক পেজে তাঁদের সাজানো গোছানো ছবি দেখা গেছে। বিয়েবাড়িতে গিয়ে ছবি তুলেছেন তাঁরা। ২০১৬-র জুলাইতেই তাঁরা শেষবারের মতো ছবি পোস্ট করেছিলেন। যেখানে সঙ্গে ছিল তাঁদের ১৩টি ছেলেমেয়ে। হাসিমুখে সবাই বাবাকে ঘিরে আছে। আর একটি ছবিতে ঘাসের উপরে গড়াগড়ি খাচ্ছেন লুইসি তরপিন। সঙ্গে ছোট্টো শিশু। যার পরনের টিশার্টে লেখা আছে মাম্মি লাভস মি।

সূত্র- সংবাদ প্রতিদিন

Loading...

Comments

comments