সোমবার সূর্যোদয়ের পূর্বে এক বিরল দৃশ্যের সাক্ষী হওয়ার সুযোগ মিলতে চলেছে। কী সেই দৃশ্য?

Loading...

রবিবার ঘুমোতে যাওয়ার আগে ঘড়িতে অ্যালার্ম দিয়ে রাখুন। কারণ সোমবার সূর্য ওঠার আগে আকাশে এক বিরল দৃশ্যের সাক্ষী হওয়ার সুযোগ মিলবে। যাকে চলতি বছরের সবচেয়ে বড় ঘটনা বলেই জানাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা।

কী সেই দৃশ্য? বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, সোমবার অর্থাৎ আগামিকাল সূর্যোদয়ের আগে শুক্র ও বৃহস্পতি গ্রহকে একে অপরের অত্যন্ত কাছাকাছি দেখতে পাওয়া যাবে। তাও আবার খোলা চোখেই। মহাজাগতিক নিয়ম মেনেই পরস্পরের থেকে দূরে থাকতেই অভ্যস্ত এই দুই গ্রহ। দুই গ্রহের মধ্যে দূরত্ব ৪১৬ মিলিয়ন মাইল। কিন্তু দীর্ঘদিন পর খুব কাছাকাছি একই সরলরেখায় দেখা যাবে দুই গ্রহকে। তবে এমন দৃশ্য দেখতে অবশ্যই প্রয়োজন পরিষ্কার মেঘ ও দূষণমুক্ত আকাশ। আর তাই ধোঁয়ায় ভরা রাজধানী দিল্লিকে হয়তো ব্রহ্মাণ্ডের এই ঘটনা দেখার থেকে বঞ্চিতই হবে।

পৃথিবী থেকে শুক্রের দূরত্ব ২৪৬ মিলিয়ন কিলোমিটার। আর ৫৯৪ মিলিয়ন মাইল দূরের গ্রহ বৃহস্পতি। তা সত্ত্বেও দেখে মনে হবে তারা পৃথিবীর একেবারে কাছে চলে এসেছে। সূর্যোদয়ের আগেই পূর্ব-দক্ষিণ কোণ উজ্জ্বল হয়ে উঠবে সোমবার। বাঁ-দিকে শুক্র ও ডানদিকে অবস্থান করবে বৃহস্পতি গ্রহ। খোলা চোখে গ্রহ দুটিকে একসঙ্গে উজ্জ্বল নক্ষত্রের মতোই দেখাবে বলে জানা যাচ্ছে।

বিজ্ঞানীরা এ খবর নিশ্চিত করে বলেছেন, ইংল্যান্ড থেকে এ দৃশ্য সবচেয়ে ভালভাবে দেখা যাবে। সূর্যোদয়ের ঠিক ৪০ মিনিট আগে যা নজরে আসবে। ভারতেও আংশিকভাবে এই দৃশ্য দেখা যাবে সূর্যোদয়ের ৪৫ মিনিট আগে৷ তবে এ ঘটনা প্রতি ১৩ মাস অন্তরই ঘটে। যদিও প্রতিবার পৃথিবী থেকে তা এত স্পষ্ট দেখায় না। গত বছরও একইভাবে কাছাকাছি এসেছিল দুই গ্রহ। নাসার টেলিস্কোপের তোলা ছবিতে সেবার ধরা পড়েছিল এক অদ্ভুত দৃশ্য। ২০১৯ সালে ফের কাছাকাছি আসবে দুই গ্রহ।

সবথেকে জনপ্রিয় খবরগুলো:

আমাদের শিক্ষামন্ত্রী প্রণব মুখার্জিপ্রধানমন্ত্রীজানি নাশিক্ষিকার উত্তর

অনলাইনে সুরক্ষার জন্য ইউজারদের নগ্ন ছবি চাইছে ফেসবুককেন জানেন?

ডেঙ্গি কমায় কি পেঁপেপাতার রসকী বলছেন বিশেষজ্ঞরা

তৃণমূল কোনো রাজনৈতিক দল নয়একটি পাবলিক লিমিটেড কোম্পানিদাবি মুকুল রায়ের

বছরের প্রথম দিন থেকে বেঙ্গালুরুতে চলবে গোলাপি রংয়ের অটো।

সুত্রঃ Pratidin

Loading...

Comments

comments