সেক্সসটিং-এর প্রভাব এখন ভারতের ওপরেও, জানুন কি এই সেক্সসটিং।

Loading...

সেলফির জনপ্রিয়তাকে পিছনে ফেলে দ্রুতই উঠে আসছে সেক্সটিং। এর উৎপত্তি বেশ কিছুদিন আগে হলেও, পুরনো চাল এখনও ভাতে বাড়ছে। সেক্সটিংয়ের প্রবণতা ভারতীয়দের মধ্যেও দাবানলের মত ছড়িয়ে পড়ছে বলে দাবি করছে প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য তৈরি এক মার্কিন ওয়েবসাইট।

তাদের দাবি, ওয়েবক্যামের মাধ্যমে সেক্স ভিডিও শ্যুট করে পাঠানো বা উত্তেজক ছবি পাঠানোর চেয়েও এখন বেশি জনপ্রিয় সেক্সটিং। ১০০ শতাংশ মানুষের মধ্যে ৩৭ শতাংশেরই প্রিয় সেক্সটিং। ওয়েবক্যাম সেক্স ৩০ শতাংশ ও ফোন সেক্সের জনপ্রিয়তা ২৬ শতাংশ।

কী এই সেক্সটিং? এতদিন তা জেনে গিয়েছেন অনেকেই। নিজের যৌন ইচ্ছেকে শব্দের মোড়কে বেঁধে বান্ধবীকে পাঠানো এসএমএস। যেমন ধরে নেওয়া যাক, আপনার বান্ধবীর শরীরের যে অংশটা আপনার সবচেয়ে প্রিয়, সেটা আপনি তাঁকে এসএমএস করে জানালেন।

তাঁকে একান্তে পেলে কীভাবে সময় কাটাবেন সেসব কথা যৌনতার মোড়কে এসএমএস করে পাঠানোকেই বলে সেক্সটিং। আপনার বান্ধবীকে রাত পোষাক পরলে কেমন লাগবে, তা মনে মনে ভেবে তাঁকে জানান। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, টেক্সটিং ভালবাসেন মেয়েরাও।

সূত্র -কলকাতা ২৪*৭

আরও পড়ুন

শীতের মরশুমে পার্লারে গিয়ে ভুল করেও যেন এই কাজগুলি করবেন না।

ভাইরাল হলো অক্ষয় কুমারের ড্রিম প্রজেক্ট ‘কেশরী’ ফার্স্ট লুক।

বার্লিনে সেক্স গেমের নামে মহিলাকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা নির্যাতন, পরে খুন

জীবনযুদ্ধে লড়াই শেষ, হাসপাতালে মৃত্যু বিশ্বজয়ী ভারত্তোলকের

Loading...

Comments

comments